৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


শিরোনাম :
  নন্দীগ্রামে জাতীয় পার্টির দোয়া ও খাবার বিতরণ       নন্দীগ্রামে ওএমএস’র চাল ও আটা বিক্রয় কেন্দ্র পরিদর্শন       নন্দীগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসামগ্রী প্রদান করলেন এমপি মোশারফ হোসেন       কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার নয়া ওসি আনোয়ারুল       দুই কিশোরীকে পাচার ঠেকালো লকডাউন, গ্রেফতার ১       নন্দীগ্রামে জাতীয় পার্টির তিনদিনের শোক কর্মসূচী       নন্দীগ্রামে বজ্রপাতে পিতাপুত্রের মৃত্যু       ইন্টারভিউ ছাড়াই নেয়া হচ্ছে ৮ হাজার নার্স-চিকিৎসক       দেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৪৭ মৃত্যু, শনাক্তেও নতুন রেকর্ড       নন্দীগ্রামের সিংড়াখালাশ মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন    


শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেউ জিততে পারেনি

স্টাফ রিপোর্টার এসইিভি নিউজঃ

সম্ভাবনা ছিল শ্রীলঙ্কার জয়ের। যে পরিস্থিতি ছিল, তাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয়ের চিন্তাটাই ছিল বাতুলতা। তারা যদি জিততে চাইতো, তাহলে নিশ্চিত হারতো। ক্যারিবিয়ানরা জিততে চায়নি, ম্যাচটা বাঁচাতে চেয়েছে। শেষ পর্যন্ত বাঁচাতে সক্ষম হলো তারা। অর্থ্যাৎ, ক্যারিবীয়রা ম্যাচ বাঁচালেও জিততে পারেনি, জিততে দেয়নি শ্রীলঙ্কাকেও। ম্যাচটা হয়েছে ড্র।

চতুর্থ ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে জয়ের জন্য ৩৭৫ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। পঞ্চম দিনে খেলা হলো ৮০ ওভার। সব মিলিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ১০০ ওভার ব্যাট করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। রান করেছে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৩৬টি। শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ড্র মেনে ১০ ওভার বাকি থাকতেই মাঠ ছাড়ে দুই দল।

দ্বিতীয় ইনিংসে ক্যারিবীয়দের বাঁচিয়ে দিয়েছেন মূলতঃ এনক্রুমাহ বোনার। অসাধারণ একটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ২৭৪ বল খেলে অপরাজিত ছিলেন ১১৩ রানে। তার সঙ্গে কাইল মায়ার্স করেন ৫২ রান। জেসন হোল্ডার অপরাজিত ছিলেন ১৮ রানে।

অথচ, ম্যাচের শুরুটা কিন্তু ড্রয়ের কথা বলেনি। প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৬৯ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। লাহিরু থিরিমান্নের ৭০ রান সত্ত্বেও তারা এত কম রানে অলআউট হয়েছিল।

জবাব দিতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ করেছিল ২৭১ রান। লিড নিয়েছিল তারা ১০২ রানের। দ্বিতীয় ইনিংসেই ঘুরে দাঁড়ায় শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। অভিষিক্ত পাথুম নিশাঙ্কার অনবদ্য সেঞ্চুরি, নিরোশান ডিকভেলার ৯৬ এবং ওসাদা ফার্নান্দোর ৯১ রানেরে ওপর ভর করে শ্রীলঙ্কা সংগ্রহ করে ৪৭৬ রান।

ফলে জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে দাঁড়ায় ৩৭৫ রানের লক্ষ্য। চতুর্থ দিন শেষ বিকেলে ২০ ওভার ব্যাটিং করেছে ক্যারিবীয়রা। ১ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ৩৪ রান। তখনও প্রয়োজন ছিল ৩৪১ রান। হাতে ছিল ৯টি উইকেট। পঞ্চম দিনে লঙ্কান বোলাররা কোনো ক্যারিশমা দেখাতে পারেনি। যার ফলে জয়ও সম্ভব হয়নি তাদের।

এসইটিভি নিউজ/মামুন


Top