৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


শিরোনাম :
  নন্দীগ্রামে ২ব্যাক্তির নিজস্ব সম্পত্তিতে ঘড় নির্মানের চেষ্টা করায় থানায় অভিযোগ       ধামরাইয়ে দক্ষিণ দীঘল গ্রামে বাইতুন নূর জামেমসজিদে ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠীত,,       শেরপুর সনদ সহ পাগড়ি পেলো সাংবাদিক পুত্র নাফী       করোনার ভ্যাকসিন নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা       নন্দীগ্রামে ২ দিন ব্যাপি কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত       নন্দীগ্রামে বিশেষ অভিযানে মাদক কারবারি ও জুয়াড়িসহ ৯ জন গ্রেপ্তার       নন্দীগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রাক হেলপারের মৃত্যু       নন্দীগ্রামে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত       পিইপি সংস্থা থেকে এতিম ও দারিদ্র পরিবারের মাঝে সহায়তা বিতরণ।       নন্দীগ্রামে পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলরদের দায়িত্ব গ্রহণ    


শিশুর সর্দি-কাশি হলে কী করবেন?

স্টাফ রিপোর্টার,এসইটিভি নিউজঃ

শিশুর জন্য খুব পরিচিত একটি সমস্যা হলো সর্দি-কাশি। তাদের যত্নে একটু উদাসীন হলেই দেখা দিতে পারে সর্দি-কাশির মতো সমস্যা। এর বড় কারণ হতে পারে শিশুর দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। আবার শিশুর সর্দি-কাশি একবার দেখা দিলে সহজে সারতে চায় না। এক্ষেত্রে আগেভাগে ওষুধ না খাওয়ানোই ভালো। বরং ঘরোয়া উপায়ে নিরাময়ের চেষ্টা করা যেতে পারে। এরপরও না সারলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

আদা এবং মধু
আদা কিংবা মধু দুটোই নানা অসুখ সারাতে কার্যকরী। আর সর্দি-কাশি সারাতে আদা এবং মধুর মিশ্রণ খুবই উপকারী। আদার রস বার করে তার সাথে মধু মেশান এবং এই মিশ্রণটি দিনে দুই-তিনবার শিশুকে খাওয়ান। দ্রুত ফল মিলবে।

সরিষার তেল
সরিষার তেল প্রায় সব বাড়িতেই থাকে। নিত্য প্রয়োজনীয় এই উপাদানেই দূর হতে পারে সর্দি-কাশির মতো সমস্যা। শিশুর সর্দি সারানোর ক্ষেত্রে সরিষার তেল খুবই উপকারী। দুই কোয়া রসুন এবং কিছু কালোজিরা দিয়ে সরিষার তেল গরম করুন। এই তেল দিয়ে শিশুর পায়ের পাতা, পিঠ, হাতের তালু এবং বুকে মালিশ করুন। উপকার মিলবে।

নারিকেল তেল এবং কর্পূর
শিশুর সর্দি-কাশি তাড়াতে এটিও একটি কার্যকরী উপায়। নারিকেল তেলে অল্প কর্পূর দিয়ে এটি গরম করুন। এটি আপনার শিশুর বুকে, পিঠে এবং গলায় আলতোভাবে মালিশ করে দিন। অনেকটা উপকার পাবেন।

দুধে জয়ফল
দুধ একটি পুষ্টিকর উপাদান। শরীরের জন্য প্রয়োজনী পুষ্টি উপদান রয়েছে এতে। এদিকে জয়ফলও একটি উপকারী মশলা। সর্দি সারাতে দুধে জয়ফল বেশ কার্যকরী। কয়েক চামচ দুধের সঙ্গে এক চিমটি জয়ফল পাউডার দিয়ে একবার ফোটান। এরপর ঠান্ডা করে শিশুকে খাওয়ান।

এসইটিভি নিউজ/এস,কে,মোহন্ত


Top