২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ || ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


শিরোনাম :
  নন্দীগ্রাম পুরাতন বাজারে সরকারি জায়গা দখল করে পাকা ঘড় নির্মান       ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাঞ্ছারামপুরে মসজিদে প্রেমিকা নিয়ে জনতার হাতে আটক ইমাম উদ্ধার করেছে পুলিশ          প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ও তার পরিবারের সুস্থতার জন্য দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত       মানবসেবায় নিউ জেনারেশ ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন       বিনামূল্যে আইনগত সহায়তার বিষয়টি সরাসরি গ্রামাঞ্চলে প্রকাশ পাচ্ছে       নন্দীগ্রামে স্বামীর জন্য সহযোগিতা চাইলেন মেয়র প্রার্থীর সহধর্মীনী       খুলনা বিভাগীয় কমিশনার টুটুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন       নন্দীগ্রামে সবজির বাজারে স্বস্তি, চড়া চালের দাম       নতুন প্রেম – জে এস সাহাদত হোসেন সাহীন       নন্দীগ্রামে কৃষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার    


নেতাকর্মীদের ধর্ষণ ঠেকাতে পাহারা দেয়ার নির্দেশ ছাত্রলীগ সভাপতির

বিশেষ প্রতিনিধি, এসইটিভি নিউজ:

নুর গংদের দ্বারা শুরু হওয়া ধর্ষণ সারাদেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।

দেশের কোথাও কোনো ইভটিজিং ও ধর্ষণের ঘটনা যেন আর না ঘটে, সেজন্য ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সজাগ থাকা ও পাহারা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আয়োজিত ধর্ষণ-নিপীড়নের ঘটনায় জড়িত আসামি ও পৃষ্ঠপোষকদের অনতিবিলম্বে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করা এবং নারীর প্রতি সহিংসতা স্থায়ী অবসানের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে ছাত্রলীগ সভাপতি জয় এমন দাবি ও নির্দেশনা প্রদান করেন।

বক্তব্যে আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘নুর গংদের দ্বারা শুরু হওয়া ধর্ষণ সারাদেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীদের উদ্দেশে করে বলতে চাই, আপনারা সবাই সজাগ থাকুন, পাহারা দিন। কোথাও কোনো ইভটিজিং ও ধর্ষণের ঘটনা যেন আর না ঘটে।’

ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, ‘তথাকথিত ছাত্র অধিকার পরিষদ বর্তমানে ধর্ষক পরিষদে পরিণত হয়েছে। সে পরিষদের নুর গংরা আমার বোনকে ধর্ষণ করে আবার লাইভ প্রোগ্রামে পতিতা বানায়। যেখানে পাবেন এই নুরু গংদের প্রতিহত করুন।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের বোন ফাতেমার পাশে আমরা ছাত্রলীগ থাকব। দ্রুত তাদের (নুর গং) গ্রেফতার করে বিচার না করা পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ফাতেমার পাশে থাকবে।’

বিক্ষোভ সমাবেশে আরও রাখেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ঢাকা উত্তরের সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয়, ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি মেহেদী হাসান ও সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ।বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে ধর্ষকদের প্রতীকী ফাঁসি কার্যকর করে ছাত্রলীগ।

এসইটিভি নিউজ/এনকেএস


Top