২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


শিরোনাম :
  দুপচাঁচিয়াতে বঙ্গবন্ধু ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙ্গচুরের প্রতিবাদে উপজেলা যুবলীগের মানববন্ধন       নন্দীগ্রাম থানার অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার-১       নৌকার মনোয়নপত্র পাওয়ায় মোটরসাইকেল শোডাউন ও আনন্দ মিছিল       নওগাঁর মান্দায় নৌকার মনোনয়নপত্র বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ       আদমদীঘিতে ওষুধের ফার্মেসিতে চাঁদা চাইতে গিয়ে ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার       নন্দীগ্রামে গলায় দড়ি দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা       মান্দায় সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেন আলমগীর হোসেন প্রামানিক       মান্দার তেঁতুলিয়ায় বিএনপির নির্বাচনী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত       চুয়াডাঙ্গায় বিয়েবাড়িতে মাংস বেশী খাওয়া নিয়ে মারামারি, আহত ৩       মান্দায় আত্মহত্যা    


মূল হোতা সহ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

নন্দীগ্রামে ফেসবুক পরিচয় থেকে ব্লাক মেইলিং করে অর্থ আদায়

মামুন আহমেদ (স্টাফ রিপোর্টার) এসইটিভি নিউজঃ বগুড়ার নন্দীগ্রামে নারী প্রতারক রিনা বেগমসহ ৩ জন গ্রেপ্তার হয়েছে। নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের ভদ্রদিঘী গ্রামের প্রবাসী সুজন আলীর স্ত্রী রিনা বেগম ‘‘শিপলু সাথী’’ নামে একটি ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে।

সেই আইডির মাধ্যমে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার কালাকান্দর গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে আব্দুল মোতালেবের সাথে সম্পর্ক গড়ে। আব্দুল মোত্তালেব সিলেটে একটি এনজিওতে চাকুরি করে। ফেসবুকে চ্যাটিং ও ফোনে তাদের কথা চলতো। রিনা বেগমের কথায় আব্দুল মোত্তালেব ১৬ জুন সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০ টায় ভদ্রদিঘী গ্রামে আসে। তখন রিনা বেগম ও তার সহযোগিরা আব্দুল মোত্তালেবের হাত ধরাধরি করে আপ্যায়ণের কথা বলে বাড়ির ভিতরে নিয়ে যায়।

এরপর আব্দুল মোত্তালেব পরিস্থিতি দেখে বারবার চলে যেতে চাইলে তারা থাকার জন্য জোর করে। এক পর্যায়ে রিনা বেগম তাকে বলে যতো সহজে এসেছিস ততো সহজে যেতে পারবি না বলে হুমকি দিতে থাকে। এরপর তাকে মারপিট করে পকেট থেকে নগদ ৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এক পর্যায়ে রিনা বেগম ও তার সহযোগিরা আব্দুল মোত্তালেবের পরিহিত শার্ট-প্যান্ট খুলে উলঙ্গ করে ছবি ধারণ করে। যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ১ লাখ টাকা দাবি করে।

সে বেকায়দায় পড়ে তার বন্ধু মুনিরুজ্জামানের মাধ্যমে রিনা বেগমের দেওয়া বিকাশ নাম্বারে ১৫ হাজার টাকা পরিশোধ করে। তারা বাদবাঁকি ৮৫ হাজার টাকা দাবি করে তার মোবাইলের একটি মেমোরি কার্ড ও মানিব্যাগে রাখা একটি এটিএম কার্ড বের করে নেয়। পরে ৮৫ হাজার টাকা আদায়ের জন্য ননজুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে নেয়। এরপর আব্দুল মোত্তালেব সেখান থেকে চলে এসে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের গিয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করে। ১৭ জুন সকালে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশকে ঘটনাটি জানালে থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ ও এসআই বিকাশ চক্রবর্তী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে রিনা বেগম ও তার সহযোগি উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের কহলী গ্রামের মিলন হোসেনের ছেলে লিটন হোসেন (২২) ও আব্দুল আলিমের ছেলে গোলাম রাব্বাী (২০) কে গ্রেপ্তার করে। রিনা বেগমের বাড়ি হতে সিসি টিভির ডিভিআর জব্দ করে পুলিশ। এ ঘটনায় ৪ জনের নাম উল্লেখ ও ৩ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী আব্দুল মোত্তালেব। থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। আসামিদের আদালতে প্রেরণসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে থানা পুলিশ ।

নন্দীগ্রাম থানার(ওসি) সাংবাদিকদের জানান, বিভিন্ন সময়ে অনেক লোকজনের কাছ থেকে এমনিভাবে ব্লাকমেইল করে অর্থ আদায় করেছে বলে রিনা বেগম ও তার দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে কেউ যদি এরকম কোনো অভিযোগ করে তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

এসইটিভি নিউচ/মামুন


Top