১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ || ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


শিরোনাম :
  নন্দীগ্রামে দুই ইউনিয়নের ২৯ গ্রামে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি       সাভা‌রে টায়ার রিকুট ক‌রে উৎপাদন করা তেল ব‌্যবহার হচ্ছে রাস্তা নির্মান কা‌জে       নন্দীগ্রামে ২২ লক্ষ টাকা ব্যায়ে আর সি সি রাস্তা ঢালাই কাজের উদ্বোধন করলেন পৌর মেয়র       নন্দীগ্রাম থানার নবাগত ওসির সাথে পৌর মেয়রের মতবিনিময়       নন্দীগ্রামে ওয়ারেন্টমূলে ৭ মামলার আসামি গ্রেপ্তার       নন্দীগ্রামে নির্মাণ শ্রমিকদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন       নন্দীগ্রামে আইন শৃংখলা কমিটিরি সভা অনুষ্ঠিত       নন্দীগ্রামে আরো ৮০ টি গৃহহীন পরিবার বাসগৃহ পাচ্ছে       নন্দীগ্রাম থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়       নন্দীগ্রামে সাংবাদিক নেতাদের সাথে থানার নবাগত ওসির মতবিনিময়    


নন্দীগ্রামে তালের শ্বাস জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ।

মামুন আহমেদ(স্টাফ রিপোর্টার)এসইটিভি নিউজঃ

বগুড়ার নন্দীগ্রামের বিভিন্ন পল্লীতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অসংখ্য তালগাছ। এই তালের ভিতর থাকে নরম একটি শ্বাস । আর এই তালের শ্বাস গ্রাম বাংলার একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার হিসেবে পরিচিতি আছে । বর্তমানে মধুমাসের কারনে এর কদর আরো বেড়ে গেছে বহুগুনে । বিকেল বেলায় সবাই তালের দোকানে ভীড় জমায় । তালের শ্বাস খেয়ে মানুষ তাদের আতœার শান্তি মিটায়। গরমের কারনে তালের শ্বাস একটি জনপ্রিয় খাবার হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে এই গরমের দিনে তালের শ্বাস খেয়ে মানুষ তাদের প্রান জুড়ায়। বছরের একটা নির্দিষ্ট সময়ে তাল গাছে তাল ধরে । বর্তমানে গাছে তাল ধরেছে এবং ঐসব তালে শ্বাস হয়েছে । তাল গাছে শ্বাস হওয়া শুরু হয় মে-জুন মাসের দিকে । আর ঠিক তখনই গ্রাম-গঞ্জে তালের শ্বাস খাওয়ার ধুম পড়ে যায় ।অনেকে আবার গ্রাম অঞ্চলে গিয়ে ভ্যানে করে তাল কিনে এনে শহরে বিক্রি করে । নিজেদের সংসারের একটু উন্নতি করে থাকে । উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ঘুরে নন্দীগ্রাম বাসষ্ট্যান্ডে দেখা যায় অনেকে পসরা সাজিয়ে তালের শ্বাস বিক্রি করছে । কয়েকজন তাল বিক্রেতার সাথে কথা বললে তারা জানায়, তালের শ্বাস গ্রাম-বাংলার একটি জনপ্রিয় খাবার । আমরা গ্রামে গিয়ে তাল পাইকারি দরে কিনে এনে বিভিন্ন হাটে বাজারে খুচরা বিক্রি করে থাকি। এতে করে কিছুটা লাভ হয় এবং ঐ লাভের টাকা দিয়ে সংসারের খরচ যোগাতে পারি । অপরদিকে উপজেলার রিধইল , সিধইল , তুলাশন ,দোহার ,দাসগ্রাম , ফোকপাল গ্রামের কয়েক জন যুবক জানান, তাল আমাদের একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার । এর শ্বাস খুবই সুস্বাধুকর একটি খাবার, আবার এই তাল পাকার পর হরেক রকমের পিঠাও তৈরী করা হয়ে থাকে গ্রাম বাংলায় । বিশেষ করে যখন জামাই বাড়িতে আনা হয় তখন এই তালের পিঠা বানানোর ধুম পড়ে যায় । কিন্তু আবহমান কালের ধারায় ঐসব তালের গাছ এখন বিলুপ্ত প্রায়। উপজেলা কৃষি অফিসার আদনান বাবু জানান, তালের গাছ একটি মুল্যবান গাছ এই গাছ থেকে ঘড় তৈরী করার বিভিন্ন ধরনের রুয়া এবং তীর তৈরী করা হয় তাল গাছকে বিলুপ্তি হতে দেয়া যাবেনা। কৃষি অফিসের উদ্যেগে বিভিন্ন রাস্তায় তালের বিজ বপন করার উদ্যেগ নেওয়া হয়েছে।

 

এসইটিভি নিউজ/মামুন


Top